| |
               

মূল পাতা ইসলাম রজব মাস থেকেই মাহে রামাদানের প্রস্তুতি গ্রহণ করুন


রজব মাস থেকেই মাহে রামাদানের প্রস্তুতি গ্রহণ করুন


  24 January, 2023     02:43 PM    


মুফতী মোহাম্মদ এনামুল হাসান

রজব মাস আরবি হিজরী সনের সপ্তম মাস। রজব মাস চারটি অতি সম্মানিত মাসের মধ্যে অন্যতম। রজব শব্দের অর্থ সম্মানিত। আরবরা জাহিলিয়াতের যুগে ও এ মাসকে সম্মান করত। এ মাসের গুরুত্ব এত বেশী যে এ মাসে কাফেরদের সাথে যুদ্ধ করা ও নিষেধ।  আল্লাহতায়ালার বিশেষ অনুগ্রহ ও দয়ার মাস রজব মাস। মাহে রমজানের অতি নিকটবর্তী হওয়াতে রজব মাসের গুরুত্ব, ফযিলত  অপরিসীম। এ মাসে ই বিশ্বনবী মোহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম মিরাজে গমন করে মহান রাব্বুল আলামিনের দিদার লাভে ধন্য হন।

রজব মাসের এবাদত বন্দেগীর দ্বারা রমজান মাসের আগমনের অনুভূতি সৃষ্টি হয়। হযরত আবুবকর রাদিয়াল্লাহু আনহু বলেন, রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এরশাদ করেছেন, বার মাসে এক  বছর। তার মধ্যে চারটি মাস অতি সম্মানিত। যথা- জিলক্বদ, জিলহজ্ব, মুহররম  ও রজব মাস। রজব মাস থেকে ই রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম রমজান মাসের প্রস্তুতি গ্রহণ করতেন। রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম রজব মাসের চাঁদ উদিত হওয়ার পর থেকে ই এই দোয়া বেশী করে পড়তেন, আল্লাহুম্মা বারিকলানা ফি রজবা ওয়া শাবান ওয়া বাল্লিগনা রমাজান। অর্থাৎ, হে আল্লাহ রজব আর শাবান মাসে আমাদের বরকত দান করুণ, এবং রমজান পর্যন্ত আমাদের পৌঁছে দিন।

হজরত আয়েশা রাদিয়াল্লাহু আনহা বলেন, আমরা রাসুল  সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের আমলের আধিক্যতা দেখে ই বুঝতে পারতাম রজব মাস কখন আসত। রাসুল  সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, আল্লাহতায়ালার নিকট রজব মাস অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি মাস। রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম আরো বলেছেন, রজব মাস আল্লাহতায়ালার মাস, শাবান মাস আমার মাস, এবং রমজান মাস আমার উম্মতের মাস। পবিত্র এই মাসে আমাদের ফরজ এবাদতের পাশাপাশি  অধিক হারে এবাদত বন্দেগীতে মনোনিবেশ করতে হবে। সকল প্রকার গুনাহ ও পাপাচার থেকে তাওবা করে আসন্ন রমজান মাসের প্রস্তুতি গ্রহণ করতে হবে। তাই আসুন! রজব মাসের ফযিলত ও বরকত লাভে ধন্য হয়ে রমজান মাসের জন্য প্রস্তুতি গ্রহণ করি।

লেখক : নাজিমে দারুল ইকামাহ, জামিয়া কোরআনিয়া সৈয়দা সৈয়দুন্নেছা ও কারিগরি শিক্ষালয় কাজীপাড়া ব্রাক্ষণবাড়িয়া