| |
               

মূল পাতা ইসলাম জুমার বয়ান ‘মুসলমানদের পাঠ্যতালিকায় বিবর্তনা থাকতে পারে না’


‘মুসলমানদের পাঠ্যতালিকায় বিবর্তনা থাকতে পারে না’


  11 November, 2022     09:13 PM    


রহমত নিউজ ডেস্ক

মসজিদে গাউছুল আজমের খতিব প্রিন্সিপাল মাওলানা খালিদ সাইফুল্লাহ বলেন, যে শিক্ষা আল্লাহকে স্বীকার করে না, আল্লাহর পরিচয় অস্বীকার করে কিংবা তাঁর সাথে শরীক করতে শেখায় তা অধ্যয়ন করা, অর্জন করা হারাম। মুসলিম তা করতে পারে না। যেমন চার্লস রবিন ডারউইন এর বিবর্তনবাদ। মুসলমানদের পাঠ্যতালিকায় বিবর্তনা থাকতে পারে না। চার্লস ডারউইন এর বিবর্তনবাদে সৃষ্টি কর্তাকে অস্বীকার করা হয়েছে। তার থিউরিতে মানুষ এসেছে বানর থেকে, অথচ পবিত্র কোরআনে বলা হয়েছে মানুষের স্রষ্ট্রা স্বয়ং আল্লাহ। আজ (১১ নভেম্বর) শুক্রবার রাজধানীর মহাখালীস্থ মসজিদে গাউছুল আজমে জুমার খুৎবা পূর্ব বয়ানে তিনি এসব কথা বলেন।

মাওলানা খালিদ সাইফুল্লাহ বলেন, মুসলনমানদের ঈমান আনার পর প্রথম কাজ হচ্ছে সে পড়বে, সে শিখবে জানবে। এটাই মহাগ্রন্থ আল কোরআনের প্রথম নির্দেশ। যেমন আল্লাহ বলেন, ইক্বরা-পড়। [সূরা আলাক : ০১] আর এ কাজটি অবশ্য কর্তব্য। প্রিয়নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন, ইলম অর্জন করা সকল মুসলমানের জন্য ফরজ-ইবনে মাজাহ। দ্বীন চর্চার জন্য যে ইলম আছে তা অবশ্যই সকলকে শিখতে হবে।  মুসলমানদের শিক্ষা কি ভাবে হবে, এর সূত্র কী হবে তা দিবালোকের ন্যায় স্পষ্ট। আল্লাহ তায়া’লা পবিত্র কোরআনের প্রথম নির্দেশের মধ্যেই তা স্পষ্ট করেছেন। তিনি বলেন পড় তোমার রবের নামে। [সূরা আলাক : ০১] পবিত্র কুরআনে আল্লাহ রাব্বুল আলামীন বলেন : হে মানব সমাজ, তোমরা তোমাদের পালনকর্তাকে ভয় কর, যিনি তোমাদের এক ব্যক্তি থেকে সৃষ্টি করেছেন এবং যিনি তার থেকে তার সঙ্গীনীকে সৃষ্টি করেছেন, আর বিস্তার করেছেন তাদের দুজন থেকে অগণিত পুরুষ ও নারী। [সূরা নিসা : ০১] হে মানব, আমি তোমাদেরকে এক পুরুষ ও এক নারী থেকে সৃষ্টি করেছি এবং তোমাদেরকে বিভিন্ন জাতি ও গোত্রে বিভক্ত করেছি, যাতে তোমরা পরস্পরে পরিচিত হও। [সূরা হুজুরাত : ১৩]